৭ মার্চের ভাষণ: পাকিস্তানিরা বুঝতে পারেনি, ব্যাখ্যা খুঁজতে খুঁজতে তাদের সময় চলে গেছে – প্রধানমন্ত্রী

আরো পড়ুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ পাকিস্তানিরা বুঝতে পারেনি। ভাষণের ব্যাখ্যা খুঁজতে খুঁজতেই তাদের সময় চলে গেছে।

বুধবার (৭ মার্চ) ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালে ৭ মার্চের এ ভাষণে মুক্তিযুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে একটি বাঙালি জাতিকে নির্দেশ দেন। দিনটি উপলক্ষে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৭ মার্চের ভাষণের আগে অনেকেই বঙ্গবন্ধুকে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার মা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের পরামর্শ অনুযায়ী, নিজ মনের কথা, জনগণের আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ৭ মার্চের ভাষণের পর পাকিস্তানি সেনারা হতবুদ্ধি হয়ে পড়েছিল। তারা বঙ্গবন্ধুর বক্তৃতার ব্যাখ্যা বের করতে পারেনি। ৭ মার্চের ভাষণ ছিল মুক্তিযুদ্ধের সূচনা। এই ভাষণের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার জন্য প্রস্তুত করেছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু যখন দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন তখন তাকে হত্যা করা হয়। হত্যার পর জাতির পিতার নাম মুছে ফেলা হয়, ৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধ করা হয়।

তিনি বলেন, সত্যকে কখনো মিথ্যা দিয়ে ঢাকা যায় না। ৭ মার্চের ভাষণ আজ আন্তর্জাতিক প্রামাণ্য দলিলে স্থান পেয়েছে। জয় বাংলা স্লোগান আজ আমাদের জাতীয় স্লোগান। আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ক্ষুধা, দারিদ্র্য মুক্ত, উন্নত, সমৃদ্ধ ও স্মার্ট সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলবো।

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজাহার খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রধানমন্ত্রী সংস্কৃতি বিষয়ক উপদেষ্টা কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন প্রমুখ।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ