স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

আরো পড়ুন

গাজীপুরের শ্রীপুরে নিজের স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা মামলার প্রধান আসামি মোল্লা গোলাম কিবরিয়া (৪১)কে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাবের যৌথ অভিযানিক দল। গ্রেফতার মোল্লা গোলাম কিবরিয়া (৪১) নড়াইল জেলার কালিয়া থানার ধসহাটী গ্রামের মৃত সায়েক উদ্দিন মোল্লার ছেলে। তিনি শ্রীপুর উপজেলার মুলাইদ এলাকায় মোল্লা ফার্মেসি নামে ব্যবসা করতেন।

ভিকটিম রিহানা খানম (২৬) গোপালগঞ্জ জেলার সদর থানার চন্দ্র দিঘিলিয়া গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলী ভূইয়ার মেয়ে।

র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (অপস এন্ড মিডিয়া অফিসার) মো: মাহফুজুর রহমান রবিবার গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

শুক্রবার রাত দুইটার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামের মোস্তফা কামাল মার্কেটে স্বামীর ভাড়াকৃত মোল্লা ফার্মেসিতে এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার দুপুর পৌণে একটার দিকে র‌্যাব-১ (গাজীপুর) ও র‌্যাব-৭ (চট্টগ্রাম) যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত স্বামী মোল্লা গোলাম কিবরিয়াকে চট্টগ্রাম মহানগরীর পাহাড়তলী থানাধীন অলংকার মোড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। রবিবার র‌্যাব গ্রেফতারকৃত আসামিকে শ্রীপুর থানায় হস্তান্তর করে।

জানা গেছে, গত ৭/৮ মাস পূর্বে শ্রীপুরের মুলাইদ এলাকার মোস্তফার বাসা ভাড়া নিয়ে রেহেনা স্বামীর সঙ্গে বসবাস করে আসছিল। পরে ২/৩ মাস পূর্বে স্ত্রীকে গ্রামে পাঠিয়ে দিয়ে দোকান ভাড়া নিয়ে কিবরিয়া একাই দোকানে থাকতো এবং ফার্মেসি পরিচালনা করে আসছিল। হত্যার তিন দিন পূর্বে রেহেনা তার স্বামীর কাছে আসে। পরে পারিবারিক ঘটনা নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে স্বামী তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই মো: হারুন অর রশিদ ভূইয়া বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। বিষয়টি আমলে নিয়ে র‌্যাব ছায়া তদন্ত করে আসামি গ্রেফতারের গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।

জিজ্ঞাসাবাদে মোল্লা গোলাম কিবরিয়া র‌্যাবের কাছে স্বীকার করে, পারিবারিক কলহের জেরে তার (আসামির) দ্বিতীয় স্ত্রী রিহানা খানমকে বটি দিয়ে মাথার বাম পাশে, বাম ও ডান পাশের চোয়ালে, থুতনির বাম পাশে, গলার বাম পাশে, গলার মাঝখানে আঘাত করে জবাই করে ফার্মেসি বন্ধ করে চট্টগ্রাম পালিয়ে যায়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকবর আলী খান জানান, স্ত্রীকে নিজ ফার্মেসিতে বটি দিয়ে জবাই করার মামলায় র‌্যাব এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে। তাকে গাজীপুর আদালতে পাঠানো হবে।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ