শিশুদের জন্য নতুন শিক্ষাক্রম: ক্লাস টাইম বাড়ানো, পরীক্ষা কমানো

আরো পড়ুন

বাংলাদেশ সরকার ২০২৪ সালের শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক চালু করতে যাচ্ছে। এই নতুন শিক্ষাক্রমের আওতায়, শিক্ষার্থীদের ক্লাস টাইম বাড়ানো হচ্ছে এবং পরীক্ষা কমানো হচ্ছে।

নতুন রুটিন অনুযায়ী, এক শিফটের স্কুলগুলোতে সকাল ৯টায় ক্লাস শুরু হয়ে সাড়ে ৩টায় শেষ হবে। দুই শিফটের স্কুলগুলোতে সকাল ৯টায় ক্লাস শুরু হয়ে সোয়া ৪টায় শেষ হবে।

এছাড়াও, নতুন শিক্ষাক্রমে ১ম, ২য় ও ৩য় শ্রেণিতে কোনো পরীক্ষা হবে না। জুন মাসের শেষে ধারাবাহিক মূল্যায়নের অর্ধ-বার্ষিক এবং ডিসেম্বর মাসে ধারাবাহিক মূল্যায়নের শিখন অগ্রগতি প্রতিবেদন প্রণয়ন করতে হবে।

৪র্থ ও ৫ম শ্রেণিতে তিনটি প্রান্তিকের নির্ধারিত সময় ও সিলেবাসে সামষ্টিক মূল্যায়ন পরিচালনা করতে হবে। উল্লেখ্য যে, এক প্রান্তিকের সিলেবাস অন্য প্রান্তিকে অন্তর্ভুক্ত হবে না।

নতুন শিক্ষাক্রমের উদ্দেশ্য হলো শিক্ষার্থীদের দক্ষতা ও যোগ্যতা বিকাশ করা। এই লক্ষ্যে, শিক্ষার্থীদের ক্লাস টাইম বাড়ানো হচ্ছে যাতে তারা নতুন বিষয়বস্তু শিখতে এবং দক্ষতা অর্জন করতে পর্যাপ্ত সময় পায়।

এছাড়াও, পরীক্ষা কমানো হচ্ছে যাতে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার চাপ থেকে মুক্তি পায় এবং জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জনের দিকে মনোনিবেশ করতে পারে।

নতুন শিক্ষাক্রমের আওতায়, শিক্ষার্থীরা নিম্নলিখিত বিষয়গুলি শিখবে:

  • বাংলা
  • ইংরেজি
  • গণিত
  • বিজ্ঞান
  • সামাজিক বিজ্ঞান
  • ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা

শিক্ষার্থীরা এছাড়াও, শিল্প ও সংস্কৃতি, খেলাধুলা ও ক্রীড়া, এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (ICT) এর উপর জোর দেওয়া হবে।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ