রাজধানীর বনশ্রীতে গৃহকর্মীর মৃত্যু, ফাঁসির কারণ তদন্তে

আরো পড়ুন

রাজধানীর বনশ্রীর একটি বাসা থেকে জবা আক্তার যুথী (১৩) নামের এক গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে খিলগাঁও থানার পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম বলেন, “আমরা খবর পেয়ে বনশ্রী জি ব্লকের ৫ নম্বর সড়কের ৯ নম্বর বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় তাকে উদ্ধার করি। পরে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।”

এসআই আব্দুর রহিম আরও বলেন, “জবা সামিউল আলম নামে একজনের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতো। কী কারণে সে গলায় ফাঁস দিয়েছে- এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।”

তিনি জানান, ওই গৃহকর্মীর গ্রামের বাড়ি জয়পুরহাট জেলায়। বাবার নাম জুয়েল মন্ডল।

পুলিশের প্রাথমিক ধারণা হলো জবা আত্মহত্যা করেছে। তবে, ঘটনার পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, জবা দীর্ঘদিন ধরে ওই বাসায় কাজ করতো। সে ছিলো খুবই সহজ-সরল মেয়ে। তার মৃত্যুতে এলাকাবাসীর মধ্যে শোকের পরিবেশ বিরাজ করছে।

পুলিশ মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে বলে আশা করছে পুলিশ।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ