যুক্তরাষ্ট্রে ইমামকে গুলি করে হত্যা

আরো পড়ুন

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি রাজ্যের নেওয়ার্ক মসজিদের ইমাম হাসান শরিফকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মুসলিম সম্প্রদায়।

বুধবার ফজরের নামাজের পর মসজিদের বাইরে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। পরে তিনি হাসপাতালে মারা যান।

ইমাম শরিফের হত্যার কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে মুসলিম সম্প্রদায়ের সদস্যদের বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক ঘটনার বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে এই হত্যাকাণ্ডকে উদ্বেগজনক বলে মনে করছেন অনেকে।

যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম নেতারা ইমাম শরিফের হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তারা এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের দাবি জানিয়েছেন এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও করেছেন।

কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্সের নিউ জার্সি শাখার মুখপাত্র দিনা সায়েদআহমদ বলেন, এই ঘটনায় আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, “ইমাম শরিফ একজন সম্মানিত ধর্মীয় নেতা ছিলেন। তিনি আমাদের সম্প্রদায়ের জন্য একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন। তার হত্যা আমাদের সম্প্রদায়ের জন্য একটি বড় ক্ষতি।”

তিনি বলেন, “আমরা এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের দাবি জানাচ্ছি। আমরা চাই যে দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হোক এবং তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক।”

নিউ জার্সি রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল ম্যাথু প্লাটকিনও ইমাম শরিফের হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “এই হত্যাকাণ্ড আমাদের রাজ্যে বন্দুক সহিংসতার একটি দুঃখজনক ঘটনা।”

তিনি বলেন, “আমরা অবশ্যই সম্ভব সব দিক থেকেই অনুসন্ধান করব এবং হামলাকারী বা হামলাকারীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

জাগো/এসআই

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ