যশোরে স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার পর স্বামীর আত্মহত্যা 

আরো পড়ুন

যশোরে পারিবারিক কলহের জেরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রীর গলায় আঘাত করে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে উজির আলী নামে এক ব্যক্তি। পরে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। আহত স্ত্রীকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বুধবার দিবাগত ২টার দিকে মণিরামপুর উপজেলার নেহালপুর ঝাউতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আজ সকালে পুলিশ উজির আলীর লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

মণিরামপুর থানার ওসি এবিএম মেহেদী মাসুদ জানান, বালিধা গ্রামের উজির আলী পেশায় একজন ভ্যানচালক। তিনি চতুর্থ স্ত্রী রোজিনা খাতুন ও প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে নেহালপুর ঝাউতলা গ্রামে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। পারিবারিক বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য হওয়ায় বুধবার দিবাগত রাতে ২টার দিকে স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো দাঁ দিয়ে গলায় আঘাত করে। এসময় তাদের ছেলের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে উজির আলী পালিয়ে যায়। পরে‌ স্থানীয়রা রোজিনাকে উদ্ধার করে মনিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে।

ওসি আরো জানান, এরপর আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয়রা বাড়ির পাশের একটি সজনা গাছে উজির আলীর গলায় রশি দিয়ে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ