যশোরে পুলিশের বাধায় বাম জোটের নির্বাচন অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পণ্ড

আরো পড়ুন

নিজস্ব প্রতিবেদক 
প্রহসনের নির্বাচনী তফসিল বাতিল ও তদারকি সরকারের অধিনে নির্বাচনসহ বিভিন্ন দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট, যশোরের নির্বাচন  অফিস অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ বাঁধা দিয়েছে। রোববার দুপুরে মিছিলটি শহরের উকিল বার মোড়ে আইনজীবী মিলনায়তনের সামনে পৌছালে পুলিশ আটকে দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে। এ সময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ সসদস্যদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মিছিলটি ঘুরিয়ে নিতে বাধ্য হন বিক্ষোভকারীরা।

পরে যশোর সার্কিট হাউজের সামনে পথসভার মধ্যদিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষ হয়। এ বিষয়ে পুলিশের বক্তব্য জানার জন্যে জেলা পুলিশের মুখোপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে কেউ ফোন ধরেননি। তবে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘বাঁধা দেওয়া হয়নি। তাদের বলা হয়েছিলো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি করার।

বাম গণতান্ত্রিক জোট সূত্রে জানা গেছে, দুপুর সাড়ে ১২টায় প্রেসক্লাব যশোরের সামনে থেকে প্রহসনের নির্বাচনী তফসিল বাতিল,ফ্যাসিবাদী সরকার ও আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ, তদারকি সরকারের অধিনে নির্বাচন ও সভা – সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতাকর্মীরা লাল পতাকা হাতে নিয়ে নির্বাচন কমিশন অফিস অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। এ সময় শেখ হাসিনা সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচন বাতিলের শ্লোগান দেওয়া হয়। মিছিলটি শহরের ব্যস্ততম উকিল বারের মোড়ে আইনজীবী ভবনের সামনে পৌছালে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে পুলিশের ২০/২৫ জন সদস্য মিছিলটি আটকে দেন।

এ সময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ জোর করে মিছিলটি শহরের বাইরের দিকে ঘুরিয়ে দেয়। ফলে বিক্ষোভকারীরা মিছিলটি সার্কিট হাউজের সামনে নিয়ে শেষ করেন। এ সময় সেখানে সংক্ষিপ্ত পথসভা হয়।

যশোর জেলা বাম গণতান্ত্রিক জোট, যশোর জেলা সমন্বয়ক বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির জেলা সভাপতি আবুল হোসেন ও বাংলাদেশের বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের জেলা সম্পাদক তসলিম উর রহমান। বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পুলিশের বাঁধা দেওয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিজয়ের মাসে মত প্রকাশে, সভা সমাবেশ, মিছিল করতে ফ্যাসিবাদ সরকার ও তার পুলিশ বাহিনী বাঁধা দিয়ে দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র প্রশ্ন বিদ্ধ করেছে।

 

জেবি/জেএইচ 

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ