যশোরে তিন মাদক কারবারির যাবজ্জীবন কারাদন্ড

আরো পড়ুন

হেরোইনের মামলায় যশোরের বেনাপোল সাদীপুরের তিন মাদক কারবারিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছে যশোরের একটি আদালতে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর ৭ আসামিকে খালাস দেয়া হয়েছে। সোমবার অতিরিক্তি দায়রা জজ ফারজানা ইয়াসমিন এক রায়ে এ আদেশ দিয়েছেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো, বেনাপোলের সাদীপুরের গ্রামের মৃত সোবহান গাজীর ছেলে হাবিবুর রহমান হবি, মৃত আহম্মদ আলী বিশ্বাসের ছেলে শওকত হোসেন ও ফজের আলীর ছেলে আকবর আলী ওরফে মাদক সম্রাট আকবর। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্তি পিপি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২ ডিসেম্বর যশোরের ডিবি পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোলের সাদীপুর গ্রামের আকবরের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় হাবিবুর রহমান ও শওকত হোসেনকে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে আকবর আলীর বিল্ডিংয়ের দক্ষিণ কোনার রুমে তল্লাশি করে কার্টনের ভিতর থেকে দেড় কেজি হেরোইন উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় আটক আসামিদের দেয়া তথ্যরে ভিত্তিতে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন ডিবির এসআই শহিদুল ইসলাম।
তদন্ত শেষে ১০ জনকে অভিযুক্ত ও বিভিন্ন সময় আটকসহ অপর ১০ জনের অব্যহতি চেয়ে আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির এসআই শরিফুল ইসলাম।

এ মামলার দীর্ঘ সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামি হাবিবুর রহমান, শওকত হোসেন ও আকবার আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাদের প্রত্যেককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাস করে কারাদÐের আদেশ দিয়েছেন। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর আসামি আব্দুল হামিদ, বেবী ওরফে মাদক সম্রাজ্ঞী বেবী, রুমা বেগম, আসমা খাতুন, সালাম, আতিয়ার ও আলালকে খালাস দেয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্ত হাবিবুর রহমান হবি, শতওক হোসেন ও আকবর আলী কারাগারে আটক আছে।

জাগো/এসআই

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ