যশোরের ছয়টি আসনে ১৮প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

আরো পড়ুন

যশোরের ছয়টি আসনের ৪৬ প্রার্থীর মনোনয়ন যাচাই-বাছাই শেষে ১৮প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। রোববার (৩নভেম্বর) বিকেলে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে এ ঘোষণা দেন জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. আবরাউল হাছান মজুমদার।

রিটার্নিং অফিসার তথ্যমতে, যশোর-১ (শার্শা) আসন স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় মনোনয়ন বাতিল হয়েছে সোহরাব হোসেন ও নাজমুল হাসান এবং সিআইবি ঋণ খেলাফির জামিনদার থাকায় জাতীয় পার্টির আক্তারুজ্জামান। এই মনোনয়ন বৈধ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শেখ আফিল উদ্দিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম ও জাকের পার্টির সবুর খান।

যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় এসএম হাবিবুর রহমানের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এছাড়াও টিন নম্বর না থাকা ও আয়কর দাখিল না করায় বাংলাদেশ ন্যাশালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ এর প্রার্থী শামছুল হকের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী তৌহিদুজজামান, স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাড, মনিরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টিল ফিরোজ শাহ, জাকের পাটির সাফাউজ্জামান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আব্দুল আওয়ালের মনোনয়ন বৈধ আছে।

যশোর-৩ (সদর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিত কুমার নাথে মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও হলফনামা ও আয়করের তথ্যের গরমিল থাকায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী তৌহিদুজ্জামান, তূর্ণমুল বিএনপির কামরুজ্জামান, জাকের পাটির মহিদুল ইসলামের এবং বিদ্যুৎ বিল না দেয়ায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি আন্দোলনের প্রার্থী শেখ নুরুজ্জামানের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ, বিকল্পধারা বাংলাদেশের মারুফ হাসান কাজল, জাতীয় পার্টির মাহবুব আলম, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির সুমন কুমার রায়ের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

যশোর-৪ (অভায়নগর-বাঘারপাড়া) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় সন্তোষ কুমার অধিকারী মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত এনামুল হক বাবুল, তূর্ণমুল বিএনপির লে.ক. (অব.) এম শাব্বির আহমেদ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি আন্দোলনের সুকৃতি কুমার মন্ডল, ইসলামী ঐক্য জোটের ইউনুছ আলী, স্বতন্ত্র প্রার্থী রনজিৎ কুমার রায়, জাকের পার্টির লিটন মোল্লা, জাতীয় পার্টির জহুরুল হকের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় কামরুল হাসান বারী, আমজাদ হোসেন লাভলু, হুমায়ূন সুলতান এবং সমর্থনকারী অন্য নির্বাচনি আসনের ভোটার হওয়ায় জাকের পার্টির হাবিবুর রহমানের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত স্বপ্ন ভট্টাচার্য্য, স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াকুব আলী, ইসলামী ঐক্য জোটের নুরুল্লাহ আব্বাসী, তূণমুল বিএনপির আবু নসর মোহাম্মদ মোস্তফা, জাতীয় পার্টির এমএ হালিমের মনোনয়র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর শতকরা একভাগ ভোটার তালিকা ঠিক না থাকায় হোসাইন মোহাম্মদ ইসলাম ও আয়কর ফরম-১০ বি জমা না দেয়ায় আজিজুল ইসলামের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, জাতীয় পার্টি জিএম হাসান, জাকের পাটির সাইদুল জামান, স্বতন্ত্র এইচএম আমির হোসেনের মনোনয়র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

যশোর জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. আবরাউল হাছান মজুমদার বলেন, ছয়টি আসন থেকে ৪৬জন মনোনয়ন দাখিল করেন। যাচাই বাছাই শেষে ২৮জনের মনোনয় বৈধ পাওয়া গেছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আচার বিধিলঙ্ঘনের কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। যাদের মনোনয়রপত্র বাতিল হয়েছে তারা নির্বাচন কমিশনের কাছে আফিল করতে পারবেন।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ