যশোরের এসপিকে বদলি চেয়ে দুপুরে সিইসিকে চিঠি, সন্ধ্যায় পিছুটান জাপার ৬ প্রার্থীর 

আরো পড়ুন

নিজস্ব প্রতিবেদক 
যশোরের পুলিশ সুপার (এসপি) প্রলয় কুমার জোয়ার্দারকে বদলি করতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালকে চিঠি দিয়েছিলেন জেলার ছয়টি আসনের জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত প্রার্থীরা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্বাচন ভবনের প্রাপ্তি জারি শাখায় তারা পৃথক ছয়টি চিঠি জমা দেন। তবে সেই সিন্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন তারা। দুপুরে সিইসিকে এসপিকে বদলির যে চিঠি দিয়েছিলেন সন্ধ্যায় সেটা প্রত্যাহার করেছেন জাপার ছয় প্রার্থী। সংশ্লিষ্ঠরা জানিয়েছেন, ‘ছয়টি আসনেই এসপির সুষ্ঠু ভোট গ্রহনের প্রতিশ্রুতিতে তারা সেই চিঠি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এসপির বদলি চাওয়া জাপা প্রার্থীরা হলেন- যশোর-১ আসনে  মো. আক্তারুজ্জামান, যশোর-২ আসনে ফিরোজ শাহ, যশোর-৩ আসনে মো. মাহবুব আলম, যশোর-৪ আসনে মো. জহুরুল হক, যশোর-৫ আসনে এমএ হালিম এবং যশোর-৬ আসনে জিএম হাসান।

জানা যায়, প্রলয় কুমার জোয়ারদার যশোরে প্রায় তিন বছর কর্মরত আছেন। তিনি সম্প্রতি এসপি থেকে অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন। পদোন্নতি হলেও তিনি বর্তমানে যশোরে কর্মরত রয়েছেন। তিনি নেত্রকোনা জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হলেও তার শ্বশুরবাড়ি মনিরামপুর উপজেলায়। আত্মীয়তার কারণে পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের শ্বশুর মনিরামপুরের মৃত চৈতন্য কুমার বিশ্বাস। তিনি মনিরামপুর উপজেলাসহ সমগ্র যশোরের বহু মানুষের সাথে সম্পর্কিত। এ ছাড়া তিনি মনিরামপুরের বর্তমান সংসদ, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের জামাই হিসাবে সুপরিচিত। আত্মীয়তার এ সম্পর্ক আসন্ন নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পারে মত এখানকার প্রার্থীদের।

যশোর-২ (ঝিকরগাছা-চৌগাছা) আসনে প্রার্থী ফিরোজ শাহ বলেন, ‌‌যেহেতু যশোরের এসপি প্রলয় কুমার জোয়ারদ্দারের শুশুর বাড়ি যশোরে। আমরা শঙ্কা করেছিলাম, স্বজনপ্রীতির কারণে সুষ্ঠু ভোট হবে না। তাই নির্বাচন কমিশন বরাবর সেই শঙ্কার কথা জানিয়ে চিঠি দিয়েছিলাম। পরবর্তী আমাদের পার্টির মহাসচিবের সঙ্গে যশোরের এসপি কথা বলেছেন। তিনি পার্টির মহাসচিবকে এখানে সুষ্ঠু ভোট হওয়ার প্রুতিশ্রুতি দিয়েছেন। পার্টির মহাসচিবের নির্দেশে আমাদের সেই অভিযোগের চিঠি প্রত্যাহার করে নিয়েছি। তিনি জানান, আমরা সবাই যশোরে রয়েছে। যশোর ফিরেই এসপি আমাদের সঙ্গে বসবেন বলে জানিয়েছেন।

যশোর ৩ আসনের জাতীয় পাটির প্রার্থী মাহবুব আলম বাচ্চু জানান, আমাদের দলীয় মহাসচিব মজিবুল আলম চুন্নুর সাথে এসপি প্রলয় কুমার জোয়ারদারের সমঝোতা হওয়ায় আমরা ৬ প্রার্থী অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছি। তিনি আশ্বস্ত করেছেন, যশোরের সব আসনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। কোন প্রভাব বিস্তার করবেনা পুলিশ। যেকারণে দলের মহাসচিবের নির্দেশে আমরা এসপির বিরুদ্ধের করা অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছি। এসপি সাহেব আমাদের ৬ প্রার্থীর সাথে আগামী ১৭ ডিসেম্বর বসবেন বলে জানিয়েছেন।

সিইসিকে লেখা তাদের চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রলয় কুমার জোয়ার্দার প্রায় তিন বছর ধরে যশোর জেলায় কর্মরত আছেন। তিনি নেত্রকোনা জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হলেও তার শ্বশুরবাড়ি মনিরামপুর উপজেলায়। আত্মীয়তার কারণে প্রলয় কুমার মনিরামপুর উপজেলাসহ সারা যশোরের বহু মানুষের সঙ্গে সম্পর্কিত। এছাড়া তিনি মনিরামপুরের বর্তমান সংসদ, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যের ‘জামাই’ হিসাবে সুপরিচিত, যা আসন্ন নির্বাচনকে প্রভাবিত করবে।চিঠিতে আরও লেখা হয়, স্বপন ভট্টাচার্য্যের সঙ্গে প্রলয় জোয়ার্দারের গভীর সম্পর্ক থাকার কারণে যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। ইতোমধ্যে এসপি প্রলয় জোয়ার্দারের নির্দেশে মনিরামপুর থানার কর্মরত এসআই ও এএসআইয়েরা প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যের পক্ষ নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন।এজন্য ওই ছয় প্রার্থী তাদের চিঠিতে এসপি প্রলয় জোয়ার্দারের বদলি চেয়েছেন।

এর আগে গত শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) প্রলয় কুমার জোয়ারদারের বদলির দাবি জানিয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ে লিখিত আবেদন করেন মনিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর আবেদনটি করেন মনিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জি এম মজিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহ-সভাপতি গৌর কুমার ঘোষ, উপজেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক সুব্রত ব্যানার্জি ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাবুল আক্তার। তারা চিঠিতে উল্লেখ করেছিলেন, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমারের নির্দেশে মণিরামপুর থানায় কর্মরত এসআই ও এএসআইরা প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের পক্ষ নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই অবস্থায় আসন্ন নির্বাচনের সময় তিনি যশোরে কর্মরত থাকলে জেলার ছটি আসনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ থাকবে না। তবে তাদের চিঠি এখনো প্রত্যাহার করেনি।

জেবি/জেএইচ 

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ