মণিহার সিনেমা হলের ক্যন্টিন দখলের চেষ্টা ও মালিককে হত্যার হুমকি

আরো পড়ুন

নিজস্ব প্রতিবেদক
যশোরের মনিহার সিনেমা হলের ৩য় তলার ডিসি ক্যান্টিনের জায়গা দখলের চেষ্টা ও মালিক জিয়াউল ইসলাম মিঠুকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে। ৩০/৪০জন আকস্মিকভাবে মনিহার হলে ঢুকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বেলা ১২টার পর। এ সময় পুরো এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি হয় ও দর্শকরা দিকবেদিক ছুটাছুটি করে সিনেমা হল ত্যাগ করে। এসব অভিযোগ এনে ডিসি ক্যান্টিনের সাবেক ভাড়াটিয়া এবিএম কামরুজ্জামান পলাশসহ ৩০/৪০ জনের বিরুদ্ধে রোববার কোতোয়ালি থানায় ও র‌্যাব-৬ যশোর অফিসে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন মনিহার সিনেমা হলের মালিক জিয়াউল ইসলাম মিঠু নিজে।

পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।
এমডি জিয়াউল ইসলামের অভিযোগ, ডিসি ক্যান্টিনটি ভাড়াটিয়া ছিলেন কামরুজ্জামানের বাবা। বাবার মৃত্যুর পরে কামরুজ্জানান নিজেই পরিচালনা শুরু করেন। কিন্তু সে ২০১৪ সালের পর থেকে ভাড়া দেয়া বন্ধ করে দেয়। টাকার তাগাদা দিলে নানা তালবাহানা শুরু করে। এসব বিষয় নিয়ে মনিহারের এক কর্মীকে জখম করে। একপর্যায় ভাড়া না দিয়ে তারা মালামাল নিয়ে নিজেরাই সরে পরে। পরে মনিহার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আদালতে মামলা করেন। সর্বশেষ গত ৯ নভেম্বর কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসীরা মনিহারে এসে ডিসি ক্যান্টিনের জায়গা জোর করে দখলের চেষ্টা করে।

এমডিসহ অন্যরা প্রতিবাদ জানালে প্রকাশ্যে খুন জখমের হুমকি দেয়। এসময় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও চেচামেশি করতে থাকে। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এঘটনার পর এমডি জিয়াউলসহ ব্যবস্থাপক মোল্লা ফারুখ আহম্মেদ, সিনিয়র স্টাফ আব্দুর রশিদ মিয়াজীসহ মনিহারের অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার এসআই মেহেদী হাসান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। কামরুজ্জামান বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে তিনতলার ডিসি ক্যান্টিন দখলের চেষ্টা করে তার প্রমান সিসি ফুটেজে উঠে এসেছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেয়ে। উর্দ্বোতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এরপর তারাই সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানান মি.মেহেদি।

জেবি/জিএইচ

 

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ