বেনাপোলে তৃতীয় লিঙ্গের রেশমা হত্যা; আটক ১

আরো পড়ুন

আবু সাঈদ শান্ত, শার্শা উপজেলা প্রতিনিধিঃ

যশোরের বেনাপোলে এক সপ্তাহ আগে নিখোঁজ রেশমা নামে তৃতীয় লিঙ্গ এক নারীর কুপিয়ে হত্যা করা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এঘটনায় ফারুক হোসেন নামে একজনকে আটক হয়েছে। ফারুক ছাড়াও ৫-৬ জন এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বলে জানা যাচ্ছে।

সোমবার (১১ মার্চ) বিকালে বেনাপোল পৌরসভার কাগজপুকুর কবরস্থান থেকে পোর্টথানা পুলিশ রেশমার মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমন ভক্ত ও যশোর গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রেশমা বেনাপোল পৌরসভার কাগজপুকুর গ্রামের জাকির হোসেনের মেয়ে ও জাফরের স্ত্রী। আটক ফারুক একই গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে।

গতমাসে রেশমাকে হত্যা চেষ্টা ও তার সম্পদ দখলের অভিযোগ এনে স্বামী জাফর, তার বন্ধু ওলিয়ার,টিটু ও সাইফুল্লার বিরুদ্ধে যশোর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে বিচার চেয়েছিল রেশমা।

এদিকে এ হত্যা কান্ড নিয়ে উধ্বতন কর্মকর্তাদের কথা বলবেন জানিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি পুলিশ। ফলে হত্যার রহস্য জানা সম্ভব হয়নি।

বেনাপোল পৌরসভার কাউন্সীলর শাহিন আহম্মেদ জানান, রেশমার স্বামীর সাথে সম্পর্ক্যের অবনতির পর সে একা কাগজপুকুর গ্রামে বসবাস করতো। কদিন ধরে তার নিখোঁজের গুঞ্জন ওঠে। সোমবার বিকালে কাগজপুকুর কবরন্থানের একটি গর্ত থেকে দূর্গন্ধ ছড়ায়। এসময় গ্রামবাসী পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গর্ত খুড়ে দেখতে পায় মরদেহটি রেশমার। এঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করে।

জাগো/আর‌এইচ‌এম 

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ