পুলিশের চাকরিকে ইবাদত মনে করি: যশোরের নবাগত এসপি মাসুদ আলম

আরো পড়ুন

যশোরের নবাগত পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মাসুদ আলম বলেছেন, চাকরিকে রুটি-রুজির পাশাপাশি আমার ইবাদত মনে করি। এই কাজের মাধ্যমে আমি জান্নাতে যেতে চাই।’ আজ বুধবার বিকালে যশোর জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা হলেন সমাজের আয়না। জাতির বিবেক। পুলিশ ও সাংবাদিক একে অপরের সহায়ক। আমরা যশোরকে শান্তি ও স্বস্তির জেলায় পরিণত করতে পারি, যদি আপনারা আমাদের সহায়তা করেন। সাংবাদিকদের সহযোগিতা পেলে যশোরকে মাদক, সন্ত্রাস ও কিশোর গ্যাং মুক্ত করা সম্ভব।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে নবাগত পুলিশ সুপার আরও বলেন, সত্য, সুন্দর, ন্যায় ও কল্যাণের সঙ্গে থাকতে চাই। আপনার সত্য তথ্য দিবেন যাচাই করে শতভাগ পদক্ষেপ নেব। আমি তদবির করে পোস্টিং নিই নাই। আমার বদলির ভয় নেই। বদলির অর্ডার হলে চলে যাবো। তবে আমি এসেছি, কাজ করতে চাই। আমাদের কাছে সন্ত্রাসীদের যে তালিকা আসবে, আমরা সেই তালিকা অনুযায়ী যাচাই-বাছাই করে কাজ করবো। সন্ত্রাসীদের কার রঙ কালো, কার রঙ সাদা সেটি বিবেচ্য হবে না।’

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাবেক সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, জেলা সংবাদপত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, প্রেসক্লাব যশোরের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান, প্রেসক্লাবের সহসভাপতি নূর ইসলাম, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনোতোষ বসু, সাধারণ সম্পাদক এইচআর তুহিন, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি আকরামুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক এসএম ফরহাদ, সাংবাদিক ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, সাকিরুল কবীর রিটন, তৌহিদ জামান, জুয়েল মৃধা, মনিরুল ইসলাম, ইন্দ্রজিৎ রায় প্রমুখ।

পুলিশ সুপার মো. মাসুদ আলম গত ৮ জুলাই যশোরে যোগদান করেছেন। এর আগে তিনি মাদারীপুরে দায়িত্ব পালন করেন। বুধবার সাংবাদিকদের পাশাপাশি পৃথক পৃথকভাবে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণের নেতৃবৃন্দের সঙ্গেও মতবিনিময় করেন নতুন এসপি মো. মাসুদ আলম।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ