দ্রুত স্কুলে পাঠানো হবে পাঠ্যপুস্তকের সংশোধনী : এনসিটিবি

আরো পড়ুন

নতুন শিক্ষাক্রমের পাঠ্যপুস্তকে ভুল-ত্রুটি ও অসঙ্গতি নিয়ে দেশজুড়ে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ক্ষোভ জানাচ্ছেন। সমালোচনা ও মতামতকে ইতিবাচকভাবে নিয়ে মূল্যায়ন করে পাঠ্যপুস্তকের ভুল-অসঙ্গতির সংশোধনী অতি দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানোর কথা জানিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)।

মঙ্গলবার বিকালে পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফরহাদুল ইসলামের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষানুরাগীসহ সবার অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক প্রণীত ২০২৪ সালের বইয়ের বস্তুনিষ্ঠ আলোচনা ও গভীর পর্যবেক্ষণে যেসব বিষয় উঠে এসেছে, তা আমরা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।

‘বছরের প্রথম দিনে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের সময় আমরা সব শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পাঠ্যপুস্তক সম্পর্কে কোনো পরামর্শ থাকলে তা অবহিত করতে অনুরোধ করেছিলাম। আপনারা আমাদের আহ্বানে তাৎপর্যপূর্ণ ইতিবাচক মতামত দিয়েছেন।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, “আপনাদের এ তাৎপর্যপূর্ণ মতামত আন্তরিকতার সঙ্গে গ্রহণ করে বিদ্যমান পাঠ্যপুস্তক যৌক্তিকভাবে মূল্যায়ণপূর্বক সংশোধনীসমূহ অতি দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যমে পাঠানো হবে। যারা আমাদের নানান তথ্য-উপাত্ত, যৌক্তিক বিশ্লেষণ এবং সঠিক উপস্থাপনার মাধ্যমে পাঠ্যপুস্তকের মানোন্নয়নে সহায়তা করছেন, তাদের প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।”

সমালোচনার বিষয়গুলো

নতুন শিক্ষাক্রমের পাঠ্যপুস্তকে যেসব ভুল-ত্রুটি ও অসঙ্গতি পাওয়া গেছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো:

  • ঐতিহাসিক ভুল: পাঠ্যপুস্তকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম তারিখ, স্বাধীনতা যুদ্ধের কিছু ঘটনা এবং মুক্তিযুদ্ধের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নাম-পরিচয়ের ক্ষেত্রে ভুল রয়েছে।
  • বৈজ্ঞানিক ভুল: পাঠ্যপুস্তকে কিছু বৈজ্ঞানিক তথ্যে ভুল রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বইয়ে পৃথিবীর আকার ও ব্যাসার্ধের পরিমাণ ভুল দেওয়া হয়েছে।
  • ভাষাগত ভুল: পাঠ্যপুস্তকে অনেক ভাষাগত ভুল রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, কিছু শব্দের বানান ভুল, বাক্য গঠনে ভুল এবং কিছু শব্দের অর্থ ভুল দেওয়া হয়েছে।
  • অসঙ্গতিপূর্ণ তথ্য: পাঠ্যপুস্তকে কিছু তথ্য একে অপরের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ। উদাহরণস্বরূপ, ইতিহাস বইয়ে একই ঘটনার বিভিন্ন অধ্যায়ে বিভিন্ন তথ্য দেওয়া হয়েছে।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ