ক্ষমা মুমিনের অনন্য একটি গুণ

আরো পড়ুন

ক্ষমা একটি মহৎ গুণ। এটি মানুষের মনকে প্রশান্ত করে এবং তাকে সুখী করে তোলে। ক্ষমার মাধ্যমে মানুষ তার পাপ মোচন করতে পারে এবং আল্লাহর অফুরন্ত ক্ষমা লাভ করতে পারে।

আল্লাহ তাআলা ক্ষমাকে পছন্দ করেন। তিনি বলেন, “তোমরা ক্ষমা করো এবং এড়িয়ে চলো যতক্ষণ না আল্লাহর নির্দেশ এসে পড়ে। নিশ্চয়ই আল্লাহ সব কিছুর ওপর সর্বশক্তিমান।” (সূরা বাকারা, আয়াত ১০৯)

আল্লাহ তাআলা ক্ষমাকারীদেরকে ভালোবাসেন। তিনি বলেন, “আর যদি তোমরা তাদের মার্জনা করো ও দোষ-ত্রুটি উপেক্ষা করো ও ক্ষমা করো, তাহলে নিশ্চয়ই আল্লাহ ক্ষমাশীল ও দয়াবান।” (সূরা তাগাবুন, আয়াত ১৪)

ক্ষমাকারী ব্যক্তি আল্লাহর অফুরন্ত ক্ষমা লাভ করে। তিনি বলেন, “যদি তোমরা কোনো সৎকর্ম প্রকাশ করো বা গোপন করো কিংবা কোনো অপরাধ মার্জনা করো, তাহলে আল্লাহ নিশ্চয়ই মার্জনাকারী ও সর্বশক্তিমান।” (সূরা নিসা, আয়াত ১৪৯)

রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, “যে ব্যক্তি কোনো মুসলমানের ভুল ক্ষমা করবে, আল্লাহ কিয়ামতের দিন তার ভুল ক্ষমা করবেন।” (ইবন মাজাহ, হাদিস ২১৯৯)

ক্ষমা করা একটি কঠিন কাজ, কিন্তু এটি একটি মহৎ কাজ। ক্ষমা করার মাধ্যমে আমরা নিজেদেরকে এবং অন্যদেরকে সুখী করতে পারি।

জাগো/আরএইচএম

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ