আসন ‘ভাগাভাগি’ নিয়ে দিল্লিতে বিরোধী জোটের বৈঠক

আরো পড়ুন

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে বিরোধী সদস্যদের গণবরখাস্তের মধ্যেই দিল্লিতে শুরু হলো বিজেপি বিরোধী জোট ‘ইন্ডিয়া’র চতুর্থ বৈঠক। দিল্লির অশোকা হোটেলে আয়োজিত বৈঠকে কংগ্রেস নেতা নোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী ও মল্লিকার্জুন খড়গে যোগ দিয়েছেন।
আরও যোগ দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী, সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব, আরজেডি প্রধান লালুপ্রসাদ, তার ছেলে তথা বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব, এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার, ডিএমকে প্রধান তথা তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্ট্যালিন, জেএমএম নেতা তথা ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন, মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তথা শিবসেনা (ইউবিটি) প্রধান উদ্ধব ঠাকরে, সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি।

বৈঠকে রয়েছেন আরও তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। আপ-এর প্রধান তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, আপ নেতা তথা পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান ও বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। দিল্লির এই বৈঠকে আগামী লোকসভা ভোটে বিজেপিবিরোধী দলগুলোর আসন সমঝোতা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হতে পারে বলে জানা গেছে। ঘটনাচক্রে, বিকেল ৪টায় ‘ইন্ডিয়া’র বৈঠক শুরুর আগেই আগামী লোকসভা ভোটে বিভিন্ন রাজ্যে সহযোগী দলগুলোর সঙ্গে আসন সমঝোতার লক্ষ্যে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গড়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে কংগ্রেসের পক্ষে।

লোকসভার সাবেক সদস্য মুকুল ওয়াসনিকের নেতৃত্ব গঠিত ওই কমিটিতে রাজস্থানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত, ছত্তীসগড়ের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বঘেল, সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সালমন খুরশিদ ও এআইসিসির সাবেক মুখপাত্র মোহন প্রকাশ রয়েছেন বলে কংগ্রেসের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ মনে করছে, হিন্দি বলয়ের তিন রাজ্যে বিজেপির কাছে কংগ্রেসের হারের পর লোকসভা ভোটের আসন ভাগাভাগি নিয়ে দরকষাকষিতে ‘ইন্ডিয়া’ভুক্ত আঞ্চলিক দলগুলো ‘সুবিধাজনক’ অবস্থানে রয়েছে। উত্তরপ্রদেশে অখিলেশ, পশ্চিমবঙ্গে মমতা, বিহারে লালু-নীতীশ, ঝাড়খণ্ডে হেমন্ত, তামিলনাড়ুতে স্ট্যালিনকে সুযোগ এনে দিয়েছে কংগ্রেসকে ‘চাপে’ রাখার। তৃণমূলের তরফে আগেই ‘ইন্ডিয়া’র বৈঠকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, লোকসভা ভোটকে ‘পাখির চোখ’ করে রাজ্যে রাজ্যে বিজেপির বিরুদ্ধে ‘একের বিরুদ্ধে এক’ প্রার্থী দেওয়ার আলোচনা শুরু করার। কিন্তু সে সময় বিষয়টিতে গুরুত্ব দেয়নি কংগ্রেস।

গত ২৩ জুন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের আয়োজনে পাটনায় ১৫টি বিজেপিবিরোধী দলের শীর্ষ নেতা-নেত্রীরা ২০২৪-এর লোকসভা ভোটে বিজেপির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের দিকনির্দেশ খুঁজতে প্রথম বৈঠক করেছিলেন। এরপর ১৭-১৮ জুলাই কংগ্রেসশাসিত কর্নাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে আয়োজিত বৈঠকে অংশ নেয় ২৬টি দল। জোটের নয়া নাম হয় ‘ইন্ডিয়া’। সেই সঙ্গেই কার্যত মুছে যায় কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোটের অস্তিত্ব। এরপরে ২৫-২৬ আগস্ট মুম্বাইয়ে ‘ইন্ডিয়া’র তৃতীয় বৈঠকটি হয়েছিল।

জেবি/জেএইচ

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ